জানতে চান ভারতের দীর্ঘতম চলমান মুক্ষমন্ত্রী কে ছিলেন ?

0
26

ভারতের দীর্ঘতম মুক্ষমন্ত্রী ছিলেন সিক্কিম এর পাওন কুমার চামলিং তিনি জন্মগ্রহণ করেছিলেন ২২ সেপ্টেম্বর ১৯৫০ সালে দক্ষিণ সিক্কিম এর যানজিয়াং গ্রামে । তিনি ১৯৯৪ থেকে লাগাতার প্রায়২৪ বৎসরের ও বেশি দিন মুক্ষমন্ত্রী পদে আছেন ।

চামলিং জীবনের কৃতিথ্যের জন্য IFOAM বিশ্বের অর্গানিক কংগ্রেস এর তরফ থেকে পুরস্কার পেয়েছিলেন। চামলিং কার্যকর্মের জন্য বিখ্যাত সিক্কিম এর মানুষের কাছে এবং সমগ্র ভারতবাসীর কাছেও ।

সিকিমের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হলেন পাওন কুমার চামলিং। ২০১৯ সালের নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে ২5 বছর পূর্ণ করবেন চামলিং।

তিনি ৩ বছর পুলিশ বিভাগের একজন কনস্টেবল হিসেবে কাজ করেছেন।এবং নিজের গ্রামের মানুষের জন্য কাজ করতে চেয়েছিলেন । কারণ তিনিপুলিশ বিভাগ থেকে পদত্যাগ করেছেন।তিনি ১৯৮৫ সালে রাজনীতিতে যোগ দেন এবং সেই নির্বাচনে একজনসংসদ সদস্য পদে জয়ী হয়ে ছিলেন। ১৯৮৯ সালে, তিনি আবারও জয়ী হয়েছিলেন , ৯৬ শতাংশ ভোটে।

দেশের দীর্ঘতম সেবাপ্রাপ্ত মুখ্যমন্ত্রী কৌশিক দেকার সঙ্গে ইন্টারভিউ তে উনাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল,আপনি রাজনীতিতে এত দীর্ঘ ইনিংস কিভাবে গড়ে তুললেন?

উত্তরে তিনি বলেছেন মানুষের বিশ্বাস ছাড়া উনি কিছুই নই। তারা উনার কাজের প্রশংসা করেছিল এবং উনি তাদের সেবা করার সুযোগ পেয়েছিলেন ।

উনাকে এটাও প্রশ্ন করা হয়েছিল সিক্কিম এর প্রতি মাথাপিছু আয় দেশে সর্বোচ্চ, 10 শতাংশেরও কম লোক দারিদ্র্যসীমার নিচে। সিক্কিমের উন্নয়নের মডেল কি?

তিনি বলেছেন তিনি চান না সিক্কিম একটি ভোক্ত রাজ্যে পরিণত হউক। তাদের উন্নয়ন মডেল মানুষের এবং প্রাকৃতিক সম্পদ ব্যবহারের উপর ভিত্তি করে। এটি ইকোটারিজম প্রবর্তনের সাথে এবং স্থানীয় সংস্কৃতির প্রচারের সাথে মিলিত করতে শুরু করে। পরবর্তী ধাপে রাষ্ট্রীয় জৈব তৈরি ইত্যাদি । উন্নয়ন পরিবেশ খরচ হতে পারে না , যেহেতু তিনি ক্ষমতায় এসেচেন , বন সংরক্ষন চার শতাংশ বেড়েছে।

সিক্কিমের পাওন কুমার চামলিং BW বিজনেস ওয়ার্ল্ডের আশিষ সিনহাকে জৈব চাষের সুবিধা করে দিয়েছেন ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here