কিছু অদ্ভুৎ পুলিশ রিপোর্ট, যা পড়ে আপনি না হেসে পারবেন না

0
58

আমরা তো অনেক সময় শুনে থাকি অনেক ধরণের পুলিশ কেসের বিষয়ে ।
যেমন -একজন আরেকজনকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে ,কারো টাকা বা গয়না চুরি হয়ে গেছে।
আমি আজ আপনাদের বলব কিছু এমন পুলিশ রিপোর্ট এর কথা যা শুনলে আপনি না হেসে পারবেন না । আপনি তৈরি তো হাসার জন্য ? চলুন শুরু করা যাক

১ )শাক -সবজি নিয়ে মামলা
একজন লোক অনলাইন থেকে শাক -সবজি কেনেন , কিন্তু তার কিছু সবজি খারাপ হয়ে গিয়েছিল। তারা সবজি ফেরত নিতে চাননি বলে,তাদের বিরুদ্ধে মামলা নিবন্ধন করেন ।

২)মালিক কে নিশ্চিত করার জন্য গরুর ডিএনএ পরীক্ষা
সাশিলেখা এবং গীতার মধ্যে গরুর মালিকানা নিয়ে কেরালা কোর্টে কেস করা হলো । করা হলো গরুর ডিএনএ পরীক্ষা ।
সাশিলেখা গরুর মালিকানা পেলো । সাশিলেখা উল্টে গীতার উপরে মানহানির দাবা করলো।

৩)দুজন কাবাব খন্দান আদালতের কাছে গিয়েছিলেন, প্রমান করতে কে আসল ‘টুন্ডে’ জানার জন্য । টুন্ডে কাবাব এবং লখনৌ ওয়ালে টুন্ডে কাবাব উভয়ই যুদ্ধে রয়েছেন । একটা কথা সবাই জানে যিনি  এই রেসিপিটি বানিয়েছিলেন সেই সশস্ত্র লোকের নাম ছিল ‘টুন্ডা’।

৪) বিহারের একজন লোক বিয়ের এক সপ্তাহ পরে আদালতে গিয়েছিল, যখন সে জানতে পারল যে তার স্ত্রী আসলে একজন ছেলে ।
এই বিষয়ের ক্ষেত্রে, একটি নববধূ বিবাহের পরে একটি ছেলের রূপে পরিণত হয়েছিল । এই দুর্ভাগ্যজনক ঘটনায় ৩৭ বছর বয়সী বালক রাম, ভারতের উত্তর প্রদেশের বাদুনের অধিবাসী। তিনি ৫০,০০০ টাকা পরিশোধ করেছেন ১৪ বছর বয়সী সুন্দরী রাজকুমারীকে বিয়ে করার জন্য । অদ্ভুত বিষয় হল, তাদের বিয়ের এক সপ্তাহ পরে জানা গেল যে রাজকুমারী আসলে একজন ছেলে ।

৫)একজন পুলিশ ইন্সপেক্টর একজন প্রতারক মহিলা ব্যবসায়ীর সাথে ষড়যন্ত্রে জড়িত ছিলেন ।
একজন সহকারী পুলিশ পরিদর্শককে শত্রুদের সঙ্গে থাকার জন্য গ্রেফতার করা হয়েছিল। এই মহিলা ব্যবসায়ী একজন পুরুষ ব্যবসায়ীকে ব্ল্যাকমেইল করে টাকা উদ্ধার করছিল। আর এই পুলিশ ইন্সপেক্টরের উপর অভিযোগ ছিল যে সে এই মহিলা ব্যবসায়ীর সাথে সম্পর্ক গড়ে তুলেছিল এবং তাকে নিজেরই বাড়িতে আস্তানা দিয়েছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here