১২ ই জানুয়ারী স্বামী বিবেকানন্দ এর জন্ম দিন

0
81

আমরা সবাই চিনি বীর সন্ন্যাসী স্বামী বিবেকানন্দকে ।
নরেন্দ্রনাথ দত্ত ১৮৬৩ সালের ১২জানুয়ারী কলকাতায় জন্ম গ্রহণ করেন।
স্বামীজির পিতা ছিলেন বিশ্বনাথ দত্ত এবং মাতা ছিলেন ভুবনেশ্বরী দেবী ।

স্বামী বিবেকানন্দের পারিবারিক নাম ছিল নরেন্দ্রনাথ দত্ত । সন্ন্যাস গ্রহণ করার পূর্বে উনিই নরেন্দ্রনাথ দত্ত নামেই পরিচিত ছিলেন । ওনার পিতা ছিলেন কলকাতা উচ্ছ বিচারালয়ের উকিল ।
স্বামী বিবেকানন্দ ছিলেন একজন ভারতীয় মহা পুরুষ ।

তিনি গরিব লোকেদের সেবা করার জন্য
রামকৃষ্ণ মিশন স্থাপন করেছিলেন । তিনি দেশের অগ্রগতির জন্য যুবকদের মনে উৎসাহের উত্তেজনা ভরে দিয়েছিলেন। তাই ওনার জন্মদিনকে জাতীয় যুব দিবস হিসাবেও পালন করা হয় । ৮ বছর বয়সে ওনাকে ঈশ্বর চন্দ্র বিদ্যাসাগরের মেট্রো পলিটিন ইনস্টিটিউশন এ ভর্তি করা হয়েছিল । আর ১৮৭৭ সাল পর্যন্ত তিনি সেখানেই পড়াশুনা করেছেলিন ।

১৮৭৯ সালে মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাস্ করার পর তিনি কলকাতা প্রেসিডেন্সি কলেজে ভর্তি হন । তিনি জেনারেল অ্যাসেম্বলি ইন্সটিউশন বা স্কটিশ চার্চ কলেজ এ পড়াশুনা করেছিলেন । তিনি পড়াশুনায় অনেক ভালো ছিলেন । স্বামীজির শিক্ষার সম্পর্কে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছিলেন ,যদি ভারতবর্ষকে জানতে চাও তাহলে বিবেকানন্দকে জানো । ১৮৮৩ সালে তিনি স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন ।

এছাড়া তিনি ঈশ্বর জ্ঞান লাভের প্রতিও গভীর আগ্রহী ছিলেন । পিতার মৃত্যুর কারণে তিনি পড়াশুনা ছেড়ে দিতে বাধ্য হন এবং ওনাকে ওনার পরিবারের ভার গ্রহণ করতে হয় । পরে তিনি তাঁর ছোটবেলার স্কুল, মেট্রো পলিটিন ইনস্টিটিউশন এ শিক্ষক হিসাবে যোগ দেন ।

উনি বলেছিলেন জীবের সেবা করা মানেই ঈশ্বরের সেবা করা। ওনার একটি বাণী ছিল ,”জিবে প্রেম করে যেইজন সেই জন সেবিছে ঈশ্বর” । সেই জন্য ওনার বাণী সারা ভারতবর্ষে অমর হয়ে আছে । ওনার কাছে আত্ম বিশ্বাসই ছিল সবথেকে বড় বিশ্বাস । তাই তিনি বলেছিলেন ৩৩ কোটি দেবদেবীর মধ্যে বিশ্বাস থাকলেও ,কারো যদি আত্ম বিশ্বাস না থাকে তাহলে তাঁর মুক্তি ঘটবে না । যারা ভালো হতে বা ভালো করতে চেষ্টা করছে তাদের সাহায্য করতে বলে গিয়েছেন তিনি ।

অন্তরের আলোর দ্বার খুলে মুক্তির আলো দেখাতে চেয়েছিলেন তিনি । স্বামীজি ওনার মহান কর্মজীবন থেকে মাত্র ৩৯ বছর বয়সে ১৯০২ সালের ৪ জুলাই মৃত্যু বরণ করেন । আমরা আজকের দিনে স্বামী বিবেকানন্দকে স্মরণ করছি ওনার ১৫৬ তম জন্মদিন উপলক্ষে ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here